জয় শ্রীল গুরুমহারাজ!
এই ওয়েব সাইটটি আমাদের পরমারাধ্য শ্রীল জয়পতাকা স্বামী গুরুমহারাজের চরণ কমলে অর্পিত।
ঘোষণা

**প্রতি ইংরেজী মাসের শেষ শুক্রবারে সন্ধ্যায় ইস্‌কন স্বামীবাগ প্রসাদ হলে ইষ্টগোষ্ঠী অনুষ্ঠিত হয়। তাই সকল গুরুভ্রাতা/গুরুভগ্নীকে উপস্থিত থাকার অনুরোধ রইল।
**যে সকল গুরুভ্রাতা/গুরুভগ্নীগনের নাম, ঠিকানা, ছবি ও দীক্ষা তথ্য আমাদের ডাটাবেসএ রাখার জন্য দেননি দয়া করে স্বামীবাগ ইস্‌কন মন্দিরে ভক্তিবেদান্ত গীতা একাডেমী শ্রী তরুনশ্যাম দাস প্রভুর নিকট পাঠিয়ে দিন।

Photo
17-Jan-2012 00:33, OLYMPUS IMAGING CORP. FE4050,X970 , 3.5, 5.8mm, 0.008 sec, ISO 2000
18-Jan-2012 05:42, OLYMPUS IMAGING CORP. FE4050,X970 , 4.8, 9.8mm, 0.017 sec, ISO 200
 
শ্রীল গুরুমহারাজ প্রদত্ত লেকচার(ডাউনলোড করুন)

শ্রীল জয়পতাকা স্বামী চৈতন্য মহাপ্রভুর নিত্য পার্ষদ

শ্রী লক্ষী নৃসিংহদেব দাস
(গুরু ভাইবোন, আশ্রিত শিষ্যগণ ও শুভাকাঙ্খীদের মধ্যে প্রচারের জন্য)

আমি সবসময়ই শুনে আসছি শ্রীল প্রভুপাদ আমাদের প্রাণপ্রিয় গুরুমহারাজকে চৈতন্যমহাপ্রভুর নিত্যপার্ষদ হিসেবে অভিহিত করে ছিলেন। আমি বেদব্যাস ও অন্যান্য জায়গায় প্রভুপাদের এই Read the rest of this entry »

শ্রীল জয়পতাকা স্বামী গুরু মহারাজের ব্যাসপূজা-২০১২

শ্রীল জয়পতাকা স্বামী গুরু মহারাজের ব্যাস পুজা উদযাপিত

শ্রীগুরুদেব পরমেশ্বর ভগবান তথা শ্রীল ব্যাসদেবের প্রতিনিধি হিসাবে শ্রীগুরুদেবের আবির্ভাব তিথিতে ব্যাস পূজা হয়ে থাকে।                            চক্ষু- দান দিল যেই,  জন্মে জন্মে প্রভু সেই,
দিব্য জ্ঞান হৃদে প্রকাশিত।
এই অধম পতিত জীবদের হৃদয়ে দিব্যজ্ঞান দাতা শ্রী গুরুদেব আমাদের জন্ম-জন্মের প্রভু। গত ১৪ই এপ্রিল ২০১১ইং তারিখে কামদা একাদশী  তিথিতে  শঙ্খ ধ্বনির  মধ্যে দিয়ে ইস্কনের জিবিসি ও গুরু বর্গের অন্যতম শ্রীল জয়পতাকা স্বামী গুরু মহারাজের ৬২তম Read the rest of this entry »

সদ্ গুরু চেনার উপায়

শ্রীমৎ জয়পতাকা স্বামী মহারাজ
পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণ গীতাতে বলেছেন যে, আমাদের অন্ধকার থেকে আলোর দিকে যেতে একজন তত্ত¡াবধায়ক বা গুরুও প্রয়োজন এবং তাঁর সেবা করা বা তাঁর কাছে আত্মসমর্পণ করা আমাদেও কর্তব্য। কিন্তু তাঁর কি লক্ষণ আছে তা শ্রীমদ্ভাগবত থেকে আমরা বুঝতে পারি। সেই

Read the rest of this entry »

সদ্য লেখা সমূহ
আর্কাইভ
গুরু উপদেশ

মনকে সংযত করে বন্ধুর মতো কাজের উপযোগী করে তুলতে হবে, যাতে কৃষ্ণতত্ত্ব উপলব্দির পথে অগ্রগতির বিষয়ে তার সাহায্য পাওয়া যেতে পারে।
-----------------
শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভু এই কারণেই সতর্ক করে দিয়েছেন মানুষের সবচেয়ে মারাত্মক ত্রুটি হচ্ছে কোনও বৈষ্ণবের প্রতি অপরাধ করা।
-----------------
কৃষ্ণভাবনাময় মহামূল্য রত্নটিকে যে মায়া বা বিভ্রান্তিজাল বিনষ্ট কিংবা বিলুপ্ত করে দিতে পারে, তা থেকে তার বন্ধুকে যে রক্ষা করে, তার চেয়ে আর বড় বন্ধু হয় না।
-----------------
তোমার একমাত্র মর্যাদা আশা করা উচিত যে, তুমি যেন ভগবানের শুদ্ধভক্ত, প্রকৃত বৈষ্ণব হয়ে উঠতে পার। সেই মর্যাদা লাভের উদ্দেশ্যেই তোমার সমস্ত চেষ্টা, যত্ন আর মনযোগ নিবিষ্ট কর।
-----------------
তোমার যা কিছু ধন-সম্পদ আছে তা ভগবান শ্রী মাধবের(শ্রী কৃষ্ণের) চরণপদ্মের সেবায় নিয়োগ করা উচিত আর কেবল তা হলেই তুমি ধন-সম্পদ থেকে অপ্রাকৃত আনন্দের অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারবে।
-----------------
পরম পুরুষ পরমেশ্বর ভগবানের প্রতি সকল মানুষের প্রেমভক্তি যার মাধ্যমে অর্জন করতে পারা যায়, তাই হচ্ছে সমস্ত মানবজাতির পরম ধর্ম। সেই প্রেমভক্তি অবশ্যই হতে হবে অহৈতুকী অপ্রতিহতা; যাতে আত্মা প্রসন্ন হয়।
-----------------
পারমার্থিক ব্যাধির প্রথম লক্ষনগুলো হচ্ছে অহংকারজাত জড়জাগতিক গুরুত্ব লাভের আকাঙ্খা যেগুলি মনের মধ্যে বসে থাকে।
-----------------
মনকে আমরা যেদিকে যেতে দিব সেদিকেই চলে যাবে। মনকে সংযত করার মানে হচ্ছে তাকে শ্রী কৃষ্ণের অভিমুখে বারে বারে ফিরিয়ে আনা। তা হলেই আমরা নিরাপদ।
-----------------
অপ্রতিহত গতিতে কৃষ্ণভাবনায় এগিয়ে যাবার উদ্দেশ্যেই মানুষের জীবন থেকে জড় জাগতিক কামনা, বাসনা, আকাঙ্খা এবং বদঅভ্যাসরূপ আগাছা সব উপড়ে ফেলার জন্য শ্রীচৈতন্য মহপ্রভু কৃষ্ণভাবনাময় ভক্তমণ্ডলীকে উপদেশ দিয়েছিলেন।
-----------------
'আমরা যেখানেই সুযোগ পাই সেখানে গান গাই "যদি প্রভুপাদ না হইতো, তাহলে কি হইতো?" যে গানটি আমরা শ্রীল প্রভুপাদের ২০১২ সালের ব্যাস পূজা উপলক্ষে রচনা করেছি, এবং এই গানের কিছু তাত্পর্য বর্ণনা দি | কিছু ভক্ত এই গানটিকে তাদের নিজেশ্য সুরে রচনা করেছেন | আমি আশা করছি এই গানটি শ্রীল প্রভুপাদের মহিমা বর্ণনার মধ্যে গণিত হবে | আমি ভাবছিলাম যদি প্রভুপাদ না হতেন তাহলে কি হত? শ্রীল প্রভুপাদ আমাদের চরম কৃপা প্রদান করেছেন, এবং এই দিন অবধি তাঁর কৃপা আমাদের উপর বর্ষিত হয়ে চলেছে | আমি কামনা করি তোমরা সকলেই যেনো শ্রীল প্রভুপাদের সঙ্গে বিশেষ ঘনিষ্ট সম্পর্ক গড়ে তোলো এবং তাঁর সেবায় নিযুক্ত থাকো গুরু পরম্পরা ধারা দ্বারা |'
-----------------
- শ্রীল জয়পতাকা স্বামী গুরুমহারাজ